Samsung Galaxy S22 Ultra vs iPhone 14 Pro Max কে এগিয়ে?

Samsung s23 Ultra vs iPhone 14 Pro Max
Samsung Galaxy S22 Ultra vs iPhone 14 Pro Max কে এগিয়ে?

হাই কি অবস্থা সবার চলে এসেছে অ্যাপেল এবং স্যামসাংয়ের টপ অফ দ্যা লেবেল হ্যান্ডসেট যেগুলি আইফোন ১৪ প্র ম্যাক্স এবং samsung galaxy s22 ultra

আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েড থেকে অ্যাপলে শিফট করতে চান কিংবা অ্যাপেল থেকে অ্যান্ড্রয়েড এ শিফট করতে চান তবে এটি ই সময়, আপনাদের জন্য এই দুইটা ফোনের কম্পেয়ার কম্পিটিশন পোস্ট নিয়ে এসেছি আমি।

apple iphone

iphone ১৪ প্রো মাক্স এর দাম শুরু হচ্ছে ৮৯৯ ডলার থেকে যেটাতে থাকছে ১২৮ গিগাবাইট স্টোরেজ ১০৯৯ ডলারে আপনি পেয়ে যাচ্ছেন ২৫৬ গিগাবাইট ভেরিয়ান্ট আর ৫১২ গিগাবাইট স্টোরেজ ভেরিয়েন্টি আপনি পাচ্ছেন ১৩৯৯ ডলারে।

গত বছর এপেল তাদের থার্টিন সিরিজে এনেছিল ১ টেরাবাইট স্টোরেজ এর ভেরিয়েন্ট যা appl এ বছরেও কন্টিনিউ করছে।

আইফোন ১৪ প্রো ম্যাক্স এর এক টেরাবাইট ভেরিয়েন্ট এর অপশন এনেছে আপেল এবারও যার প্রাইস ১৯৯৯ ডলার।

Samsung

samsung s২২ আল্ট্রা ও আপনার জন্য এই সেম স্টোরেজ অপশন গুলো।

কিন্তু কিছুটা ডিফারেন্ট প্রাইস এর সাথে।

১১৯৯ এবং ১২৯৯ ডলারে আসছে এর ১২৮ এবং ২৫৬ গিগাবাইট ভেরিয়েন্ট টি আর ১৩৯৯ এবং ১৫৯৯ ডলারে আপনি পাচ্ছেন ৫১২ আর ১ টেরাবাইট স্টোরেজ ভেরিয়েন্ট।

প্রথম দুইটি অপশনই অ্যাপেল আইফোন ১৪ প্রো ম্যাক্স এর চাইতে ১০০ ডলার করে বেশি হলেও ৫১২ গিগাবাইট এবং ১ টেরাবাইট ভেরিয়েন্ট টির দাম থাকছে আইফোন ফোরটিন প্রো ম্যাক্স এর মতই।

apple iphone!

অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে আইফোন ফোরটিন প্রো ম্যাক্স এ আসছে ios 16-এর সাথে।

Samsung

আর স্যামসাং এ আসছে অ্যান্ড্রয়েড ১২ তবে স্যামসাং অ্যান্ড্রয়েড ১৩ ও খুব তাড়াতাড়ি আসতে চলেছে।

apple iphone

iphone ১৪ প্রো ম্যাক্স এ থাকছে অ্যাপেলের লেটেস্ট এ সিক্সটিন বায়োমিক চিপসেট।

Samsung

এবং এস টুয়েন্টি টু আল্ট্রাই ইউনাইটেড স্টেটস ভেরিয়েন্ট এ থাকছে কোয়ালকমের লেটেস্ট চিপসেট স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ প্রসেসর।

আর স্যামসাংয়ের অন্যান্য কিছু রিজনে থাকছে স্যামসাংয়ের নিজস্ব লেটেস্ট এক্সজিন্যাস প্রসেসর।

apple iphone

অ্যাপেল আইফোন ফোরটিন প্রো ম্যাক্স এ থাকছে ৬.৭ ইঞ্চ ওএলইডি ডিসপ্ল। সাথে থাকছে ২২৯৬ বাই ১২৯০ পিক্সেল রেশিও

এতে আপনার এক্টিভিটির উপর নির্ভর করে থাকতে সর্বোচ্চ ১২০hz রিফ্রেশ রেট

Samsung

আর samsung s22 ultra তে থাকছে সামান্য বড় ৬.৮ ইঞ্চি ডায়নামিক এমুলেট ডিসপ্লে এবং ১৩৮৮ বাই ১৪৪০ পিক্সেল রেশিও

আইফোন ফোরটিন প্রো ম্যাক্স এর মত এতেও রয়েছে আপটু ১২০hz রিফ্রেশ রেট

apple iphone

iphone ১৪ তে যদিও নসলেস ডিসপ্লে গুজব এসেছিল কিন্তু ১৪তেও নস থাকছে। তবে এপেল এবার নস এর একটি ভিন্ন কনসেপ্ট এনেছে।

এটিতে পিল সেপ নস থাকছে যা ship expant করে বিভিন্ন অ্যাক্টিভিটিস এর নোটিফিকেশন বা অন্যান্য অপশন শো করে।

অ্যাপেল এই নস এর কনসেপ্ট টির নাম দিয়েছে ডায়নামিক আইল্যান্ড নামে যা apple এর সফটওয়্যার এর ডিজাইনের একটা ভিন্নতা এনেছে। 

Samsung

অপরদিকে samsung galaxy s22 ultra তে নস ডিসপ্লের পরিবর্তে থাকছে মাঝে একটি পানচুয়াল ক্যামেরা।

এস টুয়েন্টি টু আল্ট্রা তে ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর থাকলেও এবার অ্যাপেল কোন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর রাখেনি অ্যাপেল আইফোন ১৪ প্রম্যাক্স এখনো আনলক করতে হবে ফেস আইডি দিয়ে

এস২২ আলট্রা তে আরো থাকছে স্পেন সাপোর্টেড।

apple iphone

অ্যাপেল তাদের ১৪ প্র ম্যাক্স এ একটি পছন্দের আইটেম আনছে সেটি হলো অলওয়েজ অন ডিসপ্লে যা ফোনের স্ক্রিন অফ থাকলেও সময় এবং কাস্টমাইজবল নোটিফিকেশন দেখা যাবে।

তবে স্যামসাংয়ের এস সিরিজ যে এই অপশনটি অনেক আগে থেকেই ছিল সো হতাশ হওয়া যাবেনা স্যামসাং ভক্তরা

apple iphone

ফোর্টিন প্র ম্যাক্স এ থাকছে রাউন্ডেড এস

Samsung

এবং s22 আল্ট্রাতে আছে স্কয়ারশিপ এস

apple iphone

ফোর্টিন প্র ম্যাক্স হবে ৭.৮৫ মিলিমিটার থিকনেস

Samsung

এবং গ্যালাক্সি এস ২২ আল্ট্রা হবে ৮.৯ মিলিমিটার থিকনেস

কিন্তু আইফোন ১৪ প্রো মাক্স আবার s22 ulter চাইতে একটু ভারি 

apple iphone

আইফোন ১৪ প্রো মেক্স ২৪০ গ্রাম।

apple iphone

অন্যদিকে samsung galaxy s22 ultra ২২৮ গ্রাম।

দুটি ফোনেই থাকছে আই পি ৬৮ রেটিং।

অ্যাপেল ক্লেম করছে এটি ৬ মিটার পানির নিচে ৩০ মিনিট সারভাইভ করবে, এবং স্যামসাং ক্লেম করছে s22 ultra ১.৫ মিটার পানির নিচে ৩০ মিনিট ধরে সারভাইভ করবে।

এবার আসা যাক এই দুটি ফোনের আকর্ষণীয় ব্যাপারে সেটি হল ক্যামেরায়। এই দুটি স্মার্টফোনের ক্যামেরা তেই দেখা গেছে এবার আপডেটেড।

apple iphone

ফোর্টিন প্র ম্যাক্স এ থাকছে তিন ক্যামেরা সেটআপ থাকছে এবং সাথেই থাকছে কিছু ইম্প্রুভ সেন্সর। এতে রয়েছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরা। একটি টুয়েল মেগাপিক্সেলের আলট্রা হোয়াইট লেন্স এবং একটি ১২ মেগাপিক্সেলের থ্রি এক্স টেলি ফটো লেন্স।

এবং এর সাথেই ১২ মেগাপিক্সেলের অটো ফোকাস ফ্রন্ট ক্যামেরা।

Samsung

উপরদিকে samsung galaxy s২২ আল্ট্রাই থাকছে চার ক্যামেরার একটি সেটআপ। এতে থাকছে ১০৮ মেগাপিক্সেল ওয়াইট অ্যাঙ্গেল লেন্স।

১২ মেগাপিক্সেল আলট্রা হোয়াইট লেন্স ১০ মেগাপিক্সেল টেলি ফটো লেন্স এবং আরো একটি টেলি ফটো লেন্স

এতে পাওয়া যাবে ওয়ান হান্ড্রেড এক্স জুম ফিচার

আর সেলফি তোলার জন্য এতে রয়েছে ৪০ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা।

apple iphone

ভিডিও ক্যাপচার এর জন্য আইফোনে থাকছে সামনে এবং পিছনে দুই ক্যামেরা তেই ২৪ -২৫ -৩০ -৬০ এফ পি এস এ ৪কে ভিডিও রেকর্ডিং

Samsung

s22 ultra তে থাকছে সামনে এবং পিছনে ক্যামেরায় ৬০ এফ পি এস এ ফোরকে ভিডিও, এতে ব্যাক ক্যামেরায় ২৪ এফপি এসে ৮কে ভিডিও রেকর্ডিং এর ও অপশন থাকছে।

অর্থাৎ আইফোন ১৪ প্রো ম্যাক্স এর তুলনাই স্যামসাং এবার হাই কোয়ালিটির ভিডিও অফার করছে।

এবার আসা যাক ব্যাটারি লাইফে?

apple iphone

এপেল এবার তাদের ব্যাটারি সেগমেন্টে কোন কিছুই প্রকাশ করেনি তবে অ্যাপেল ক্লেম করছে ২৭ ঘন্টার ভিডিও প্লে ব্যাক।

Samsung

s22 আলট্রা তে থাকছে ৫০০০ মিলিয়নপেয়ারের ব্যাটারি এটা রেগুলার ইউজে ১.৫ দিন পর্যন্ত ব্যাকআপ দিতে পারবে।

apple iphone

কালার অপশন হিসেবে রয়েছে 14 প্রো মেক্স এ ডিপ, পারপেল, গোল্ড,সিলভার ,স্পেস ব্ল্যাক এই চারটি অপশন

Samsung

গিরিন পার্পল সানডোম ব্ল্যাক কালার অপশন। এবং এক্সক্লুসিভ কালার অপশন হিসেবে পেতে পারেন স্কাই বুলু।

Samsung $Apple

iphone ১৪ প্রো ম্যাক্স এবং samsung galaxy s22 ultra দুটোতেই থাকছে ওয়ারলেস চার্জিং অপশন এস২২ আল্ট্রাতে রিভার্স চার্জিং এর অপশন আছে যা শুধুমাত্র স্যামসাংয়ের ডিভাইস গুলোতে দেখা যায়।


এই ছিল বর্তমান ফোন ইন্ডাস্ট্রির দুইটা ফ্লাক্সিপ ফোন samsung galaxy s22 ultra এবং iphone ১৪ প্রো ম্যাক্স এর স্পেসিফিকেশন এর কম্পিটিশন।

মনে রাখবেন কোনটি এগিয়ে আর কোনটি পিছিয়ে এটা বলার সাধ্য আমার নেই কারণ দুইটা স্মার্ট ফোন কোম্পানির ফোনগুলো ক্রেতাদের পছন্দের তালিকায় থাকে।

তাই মার্ক করলে হয়তো মন খারাপ হতে পারে।

যাইহোক আপনার কাছে কি মনে হয় সেটি কমেন্ট সেকশনে লিখতে পারেন কারণ এটি আপনার অধিকার আছে। আশা করছি কেউ কাউকে ছোট করে কিছু লিখবেন না ধন্যবাদ দেখা হচ্ছে খুব শিঘ্রই ততক্ষণ পর্যন্ত আপনি আমাদের ওয়েবসাইটের সাথেই থাকতে পারেন ধন্যবাদ ♥️

৪টি মন্তব্য

  1. ভাই খুব ভালো লাগছে
  2. ওনেক ভালো লাকছে
  3. Vai ami noton ai blog ta kholci ami besi kiso janina YouTube video dekhy kholci koyta post korle Google adsense pabo
    1. কপিরাইট মুক্ত ১৫ টি আর্টিকেল লিখে আবেদন করুন ❤️